Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৬ জানুয়ারি ২০২০

মাইকোটক্সিন পরীক্ষা

মৎস্য ও মৎস্যপণ্য এবং মৎস্য খাদ্যের মাইকোটক্সিন পরীক্ষা

নিরাপদ খাদ্য মানুষের অধিকার। উৎপাদিত মাছ ও চিংড়ি খেয়ে কেউ অসুস্থ হবে না- এ প্রত্যাশা সবার। তাছাড়া মাছ ও চিংড়ি হলো আন্তর্জাতিক বাজারের পণ্য। বিশ্ববাজারে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হলে মানসম্পন্ন ও নিরাপদ মৎস্য ও মৎস্য পণ্য উৎপাদন করতে হবে। কিন্তু চাষ পর্যায়ে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে নিষিদ্ধ ঘোষিত অথবা অনুমোদিত রাসায়নিকের যথেচ্ছ ব্যবহার উৎপাদিত মাছ ও চিংড়ির গুণগত মান বিনষ্ট ও জনস্বাস্থ্যের জন্য অনিরাপদ করে তোলে। সেপ্রেক্ষিতে মৎস্য ও মৎস্যপণ্যে ক্ষতিকর মাইকোটক্সিনের উপস্থিতি পরীক্ষা করা জরুরী। কোয়ালিটি কন্ট্রোল ল্যাবরেটরি, মৎস্য অধিদপ্তর, ঢাকার রাসায়নিক ল্যাবরেটরিতে স্ট্যান্ডার্ড/ইন হাউস ভ্যালিডেটেড টেস্ট মেথড অনুসরণ করে মৎস্য ও মৎস্যপণ্যে ক্ষতিকর মাইকোটক্সিনের উপস্থিতি পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়। এজন্য যথাযথভাবে পূরণকৃত আবেদন ও নমুনা পাঠানোর পাশাপাশি নির্ধারিত পরীক্ষণ ফি (মৎস্য ও মৎস্যপণ্য (পরিদর্শণ ও মাননিয়ন্ত্রণ) বিধিমালা, ১৯৯৭ অনুসারে) এবং পরীক্ষণ ফি এর ১৫% ভ্যাট পরিশোধ করতে হয়।

 

নমুনা গ্রহণ

মাইকোটক্সিনের উপস্থিতি পরীক্ষা পরীক্ষণের জন্য সরাসরি প্রতিনিধির মাধ্যমে যথাযথ তাপমাত্রায় সংরক্ষিত মৎস্য ও মৎস্যপণ্যের নমুনা/ডাকযোগে মৎস্যখাদ্যের নমুনা প্রেরণ করতে হয়।

 

পরীক্ষণ প্যারামিটার

ম্যাট্রিক্স

পরীক্ষণ প্যারামিটার

পরীক্ষণ ফি

মৎস্য  ও মৎস্য পণ্য

Mycotoxin (B1, B1, G1, G2)

৫০০০/-

 

মাইকোটক্সিন পরীক্ষার ফলাফল প্রদান

নমুনা গ্রহণ থেকে শুরু করে সবগুলো এ্যানালাইসিস সম্পন্ন করে ফলাফল প্রদান করতে সর্বোচ্চ ১০ দিন সময় নেয়া হয়ে থাকে। ফলাফল ইমেইলের মাধ্যমে এবং ডাকযোগে পাঠানো হয়। ইমেইলে ফলাফল পাঠানোর ক্ষেত্রে গ্রাহককে একটি সচল ইমেইল আইডি আবেদন ফরমে উল্লেখ করতে হবে।

 

 

 

যোগাযোগ

 

মোঃ বরকতুল আলম

পদবী: মৎস্য পরিদর্শন ও মাননিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা

অফিস: কোয়ালিটি কন্ট্রোল ল্যাবরেটরি, মৎস্য অধিদপ্তর, ঢাকা

ই-মেইল: barkatbau@gmail.com

ফোন (অফিস): ০২-৭৭৪২৩৫৭

মোবাইল: ০১৭১৭-৪১০৫৩৮


Share with :

Facebook Facebook